শ্রীশ্রীপ্রেমবিবর্ত্ত


৮। কুটীনাটি ছাড়

 

সরল মনে গোরাভজন

গোরা ভজ, গোরা ভজ, গোরা ভজ ভাই ।

গোরা বিনা এ জগতে গুরু আর নাই ॥১॥

যদি ভজিবে গোরা সরল কর নিজ মন ।

কুটীনাটি ছাড়ি’ ভজ গোরার চরণ ॥২॥

মনের কথা গোরা জানে ফাঁকি কেমনে দিবে ।

সরল হলে গোরার শিক্ষা বুঝিয়া লইবে ॥৩॥

আনের মন রাখিতে গিয়া আপনাকে দিবে ফাঁকি ।

মনের কথা জানে গোরা কেমনে হৃদয় ঢাকি ॥৪॥

গোরা বলে, “আমার মত করহ চরিত ।

আমার আজ্ঞা পালন কর চাহ যদি হিত” ॥৫॥

কপট ভজন

“গোরার আমি, গোরার আমি” মুখে বলিলে নাহি চলে ।

গোরার আচার, গোরার বিচার লইলে ফল ফলে ॥৬॥

লোক দেখান গোরা ভজা তিলক মাত্র ধরি' ।

গোপনেতে অত্যাচার গোরা ধরে চুরি ॥৭॥

অধঃপতন হবে ভাই কৈলে কুটীনাটি ।

নাম-অপরাধে তোমার ভজন হবে মাটি ॥৮॥

নাম লঞা যে করে পাপ হয় অপরাধ ।

এর মত ভক্তি আর আছে কিবা বাধ ? ॥৯॥

নাম করিতে কষ্ট নাই নাম সহজ ধন ।

ওষ্ঠ-স্পন্দ-মাত্রে হয় নামের কীর্ত্তন ।

তাহাও না হয় যদি হয় নামের স্মরণ ॥১০॥

তুণ্ডবন্ধে চিত্তভ্রংশে শ্রবণ তবু হয় ।

সর্ব্বপাপ ক্ষয়ে জীবের মুখ্য ফলোদয় ॥১১॥

বহুজন্ম অর্চ্চনেতে এই ফল ধরে ।

কৃষ্ণনাম নিরন্তর তুণ্ডে নৃত্য করে ॥১২॥

কর্ম্মজ্ঞানযোগাদির সেই শক্তি নহে ।

বিধিভঙ্গদোষে ফলহীন শাস্ত্রে কহে ॥১৩॥

সে সব ছাড় ভাই নাম কর সার ।

অতি অল্পদিনে তবে জিনিবে সংসার ॥১৪॥

কবি কর্ণপূর

ধন্য কবি কর্ণপূর স্বগ্রামনিবাসী ।

নামের মহিমা কিছু রাখিল প্রকাশি’ ॥১৫॥

গৌর যারে কৃপা করে, বিশ্বে সেই ধন্য ।

সপ্তবর্ষ বয়সে হৈল মহাকবি মান্য ॥১৬॥

ধন্য শিবানন্দ কবি-কর্ণপূর-পিতা ।

মোরে বাল্যে শিখাইল ভাগবত-গীতা ॥১৭॥

নদীয়া লইয়া মোরে রাখে প্রভুপদে ।

শিবানন্দ ত্রাতা মোর সম্পদে বিপদে ॥১৮॥

তার ঘরে ভোগ রান্ধি’ পাক-শিক্ষা হইল ।

ভাল পাক করি’ শ্রীগৌরাঙ্গ-সেবা কৈল ॥১৯॥

জগাই বলে, “সাধুসঙ্গে দিন যায় যার ।

সেই মাত্র নামাশ্রয় করে নিরন্তর” ॥২০॥

 


 

← ৭। সকলের পক্ষে নাম ৯। যুক্তবৈরাগ্য →

 

সূচীপত্র:
১। মঙ্গলাচরণ
২। গ্রন্থরচনা
৩। প্রথম প্রণাম
৪। গৌরস্য গুরুতা
৫। বিবর্ত্তবিলাসসেবা
৬। জীব-গতি
৭। সকলের পক্ষে নাম
৮। কুটীনাটি ছাড়
৯। যুক্তবৈরাগ্য
১০। জাতিকুল
১১। নবদ্বীপ-দীপক
১২। বৈষ্ণব-মহিমা
১৩। শ্রীগৌরদর্শনের ব্যাকুলতা
১৪। বিপরীত বিবর্ত্ত
১৫। শ্রীনবদ্বীপে পূর্ব্বাহ্ণ-লীলা
১৬। পীরিতি কিরূপ ?
১৭। ভক্তভেদে আচারভেদ
১৮। শ্রীএকাদশী
১৯। নামরহস্যপটল
২০। নাম-মহিমা
বৃক্ষসম ক্ষমাগুণ করবি সাধন । প্রতিহিংসা ত্যজি আন্যে করবি পালন ॥ জীবন-নির্ব্বাহে আনে উদ্বেগ না দিবে । পর-উপকারে নিজ-সুখ পাসরিবে ॥