শ্রীশ্রীপ্রেমবিবর্ত্ত


১০। জাতিকুল

 

কুল ও ভজন যোগ্যতা

শ্রদ্ধা হইলে নরমাত্র নামের অধিকারী ।

জাতিকুলের তর্ক তর্কীর না চলে ভারিভুরি ॥১॥

ব্রাহ্মণের সৎকুল না হয় ভজনের যোগ্য ।

শ্রদ্ধাবান্ নীচজাতি নহে ভজনে অযোগ্য ॥২॥

কুলাভিমানী অভক্ত

সংসারের দশকর্ম্মে জাতিকুলের আধিপত্য ।

কৃষ্ণজনে জাতিকুলের না আছে মাহাত্ম্য ॥৩॥

জাতিকুলের অভিমানে অহঙ্কারী জন ।

ভক্তিকে বিদ্বেষ করি’ যায় নরক-ভবন ॥৪॥

না মানে বৈষ্ণবভক্ত, না মানে ধর্ম্মাধর্ম্ম ।

অহঙ্কারে করে সদা অকর্ম্ম-বিকর্ম্ম ॥৫॥

অভক্ত বিপ্র হইতে ভক্তি মুচি শ্রেষ্ঠ

মুচি হঞা কৃষ্ণ ভজে কৃষ্ণকৃপা পায় ।

শুচি হঞা ভক্তিহীন কৃষ্ণকৃপা নাহি তায় ॥৬॥

দ্বাদশ গুণেতে বিপ্র অলঙ্কৃত হঞা ।

কৃষ্ণভক্তি বিনা যায় নরকে চলিয়া ॥৭॥

কৃষ্ণভক্তি যথা, তথা সর্ব্বগুণগণ ।

আপন ইচ্ছায় দেহে বৈসে অনুক্ষণ ॥৮॥

মৃতদেহে অলঙ্কার হয় ঘৃণাস্পদ ।

অভক্তের জপ-তপ বাহ্য সে সম্পদ ॥৯॥

বিষয়ে রাগদ্বেষ বর্জ্জনীয়

ভজ ভাই একমনে শচীর নন্দন ।

জাতিকুলের অভিমান হবে বিসর্জ্জন ॥১০॥

অভিমান ছাড়িলে ভাই ছাড়িবে বিষয় ।

বিষয় ছাড়িলে শুদ্ধ হবে তোমার আশয় ॥১১॥

বিষয় হইতে অনুরাগ লও উঠাইয়া ।

কৃষ্ণপদাম্বুজে রাগে দেহ লাগাইয়া ॥১২॥

হও তুমি সৎকুলীন তাহে কিবা ক্ষতি ।

কুলের অভিমান ছাড়ি’ হও দীনমতি ॥১৩॥

অভিমানহীন দীনের প্রতি ভগবানের দয়া

দীনেরে অধিক দয়া করে ভগবানে ।

অভিমান দৈন্য নাহি রহে একস্থানে ॥১৪॥

অভিমান নরকের পথ, তাহা যত্নে ত্যজ ।

দৈন্যে রাধাগোবিন্দের পাদপদ্মে মজ ॥১৫॥

অভিমান-ত্যাগ নিত্যানন্দের দয়া সাপেক্ষ

আহা ! প্রভু নিত্যানন্দ কবে করিবে দয়া ।

অভিমান ছাড়াঞা মোরে দিবে পদ-ছায়া ॥১৬॥

 


 

← ৯। যুক্তবৈরাগ্য ১১। নবদ্বীপ-দীপক →

 

সূচীপত্র:
১। মঙ্গলাচরণ
২। গ্রন্থরচনা
৩। প্রথম প্রণাম
৪। গৌরস্য গুরুতা
৫। বিবর্ত্তবিলাসসেবা
৬। জীব-গতি
৭। সকলের পক্ষে নাম
৮। কুটীনাটি ছাড়
৯। যুক্তবৈরাগ্য
১০। জাতিকুল
১১। নবদ্বীপ-দীপক
১২। বৈষ্ণব-মহিমা
১৩। শ্রীগৌরদর্শনের ব্যাকুলতা
১৪। বিপরীত বিবর্ত্ত
১৫। শ্রীনবদ্বীপে পূর্ব্বাহ্ণ-লীলা
১৬। পীরিতি কিরূপ ?
১৭। ভক্তভেদে আচারভেদ
১৮। শ্রীএকাদশী
১৯। নামরহস্যপটল
২০। নাম-মহিমা
বৃক্ষসম ক্ষমাগুণ করবি সাধন । প্রতিহিংসা ত্যজি আন্যে করবি পালন ॥ জীবন-নির্ব্বাহে আনে উদ্বেগ না দিবে । পর-উপকারে নিজ-সুখ পাসরিবে ॥