সর্বশেষ আপডেট:

 

মঙ্গলবার, ২ মে ২০১৭:
আমার শোচন (ওঁ বিষ্ণুপাদ শ্রীল ভক্তি নির্ম্মল আচার্য্য মহারাজের হরি-কথামৃত)
"এই জগতের পিতা, মাতা, ভাই, বোন, এইসব সম্বন্ধ দুদিনের সম্বন্ধ কিন্তু গুরুর সঙ্গে শিষ্যের সম্বন্ধটা হয়েছে জন্ম-জন্ম-অন্তরের সম্বন্ধ । সেইটা যে বুঝতে না পারে, সে সত্যিকারের গুরু হতে পারে না, সে সত্যিকারের শিষ্য হতে পারে না । এটা সবসময় আপনাদের মনে রাখতে হবে ।"

 

মঙ্গলবার, ১৮ এপ্রিল ২০১৭:
আমি তো সব ব্যবস্থা করি নাকি ? (ওঁ বিষ্ণুপাদ শ্রীল ভক্তি নির্ম্মল আচার্য্য মহারাজের হরি-কথামৃত)
"এক যে ছিল ব্রাহ্মণ, তার নাম ছিল অর্জ্জুন মিশ্র । তিনি প্রত্যেক দিন গীতা-পাঠ করতেন আর প্রত্যেক দিন ভিক্ষায় বেরিয়ে যেতেন । এক দিন গীতা-পাঠ করে এই শ্লোকটা দেখতে পেলেন, 'যারা অন্য চিন্তা বাদ দিয়ে আমার শরণাপন্ন হয়, তাদের খাবারটা আমি বয়ে এনে দেই'"...

 

বুধবার, ১২ এপ্রিল ২০১৭:
ভক্ত ও নাপিত (ওঁ বিষ্ণুপাদ শ্রীল ভক্তি নির্ম্মল আচার্য্য মহারাজের হরি-কথামৃত)
"আমি হাতটা মুখের সামনে তুলে কি আঙ্গুলটা গুণতে পারব ? না, হাতটা একটু দূরে রেখতে হবে । ভগবানের মন্দিরে গিয়ে ভগবানকে দেখেবে ? “ভক্তের হৃদয়ে গোবিন্দ বিশ্রাম করেন”—ভক্তের কাছে গেলে ভগবান দেখা দেবেন, তার ভক্তের সঙ্গই করে যেতে হবে ।"

 

মঙ্গলবার, ২৮ মার্চ ২০১৭:
ভগবানের চরণে পথ (ওঁ বিষ্ণুপাদ শ্রীল ভক্তি নির্ম্মল আচার্য্য মহারাজের হরি-কথামৃত)
"দিন তো চলে যাবে । সময় ফুরিয়ে আসবে, তখন চলে যেতে হবে কিন্তু কতটা ভগবানের সেবা করতে পারলাম ? কতটা গুরু-বৈষ্ণবের সেবা করতে পারব আর পরলাম ? কতটা ভগবানের সেবার দিকে নিজেকে নিযুক্ত করতে পারলাম । সেইটা সবসময় চিন্তা করতে হবে ।"

 

বৃহস্পতিবার, ২ মার্চ ২০১৭:
পূজনীয় বিসর্জন (ওঁ বিষ্ণুপাদ শ্রীল ভক্তি নির্ম্মল আচার্য্য মহারাজের হরি-কথামৃত)
"রামানুজ আচার্য্যের দুই বিশেষ শিষ্য ছিল । কি ভাবে তারা বিসর্জন দিলেন ? তারা কোন সুখের চিন্তা করতেন না, শুধু গুরু-সেবার জন্য চিন্তা করতেন আর গুরু-সেবার জন্য তারা জীবনটাও বিপন্ন করে দিলেন..."

 

বুধবার, ১ মার্চ ২০১৭:
শ্রীহরিনাম দীক্ষা : গুরুপাদপদ্মের দান (ওঁ বিষ্ণুপাদ শ্রীল ভক্তি নির্ম্মল আচার্য্য মহারাজের হরি-কথামৃত)
"ত্যযুগের ধর্ম্ম, ত্রেতাযুগের ধর্ম্ম, দ্বাপরযুগের ধর্ম্ম কলিযুগের ধর্ম্মের আলাদা । সত্যযুগে লোক ধ্যান করে ভগবানকে পেতেন, ত্রেতাযুগে লোক যজ্ঞ করতেন, দ্বাপরযুগে ধর্ম্ম ছিল অর্চনা-পূজা । আর কলিযুগের ধর্ম্ম হচ্ছে হরিনাম সঙ্কীর্ত্তন ।"

 

মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০১৬:
শিবজী মহারাজ : পরম বৈষ্ণব (ওঁ বিষ্ণুপাদ শ্রীল ভক্তি নির্ম্মল আচার্য্য মহারাজের হরি-কথামৃত)
"কেউ বলে, 'তুমি শিব ভক্ত, আমি কৃষ্ণ ভক্ত !' এরকম বলবেন না । শিব আর কৃষ্ণ আলাদাও নয়, আবার শিব আর কৃষ্ণ একও নয় । শিব হচ্ছেন কৃষ্ণের অংশবিশেষ । শিব ভগবানের সেবক, শিবজী মহারাজ পরমভক্ত ।"

 

রবিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০১৬:
বামনদেবের কথা (ওঁ বিষ্ণুপাদ শ্রীল ভক্তি নির্ম্মল আচার্য্য মহারাজের হরি-কথামৃত)
"দৈত্যরাজ ছিল বলি মহারাজ । সে বলি মহারাজ দেখতে পারলেন যে, সব অসুররা পরাজিত হচ্ছে, সবাই মরে যাচ্ছে আর উনি ভাবলেন, 'আমাকে বিরাট যজ্ঞ করতে হবে ।' এদিকে স্বর্গে অদিতি চিন্তা করলেন, 'হে প্রভু ! তোমার ইচ্ছায় এ সব হচ্ছে, তুমি একটু ব্যবস্থা করে দাও—আবির্ভুত হও !' আর সে অদিতির গর্ভেই ভগবান বামন-রূপে আবির্ভুত হলেন..."

 

 

সংরক্ষণাগার : আগের আপডেট

 

 

 

শ্রীগৌড়ীয়-পর্ব্ব-তালিকা

মে মাস—৩১ দিন

২০ মধুসূদন, ১৭ বৈশাখ, ১ মে, সোমবার, গৌর-পঞ্চমী দিবা ৬।০৮ পরে গৌর-ষষ্ঠী রাত্রি ৩।৫৯ । শ্রীপাদ শঙ্করাচার্য্যের আবির্ভাব । ত্রিদণ্ডিস্বামী শ্রীমদ্ভক্তিবিলাস গভাস্তিনেমী মহারাজের তিরোভাব । উঃ ৫।০৯ অঃ ৬।০১ ।

২১ মধুসূদন, ১৮ বৈশাখ, ২ মে, মঙ্গলবার, গৌর-সপ্তমী রাত্রি ২।০৪ । জহ্নু সপ্তমী । শ্রীজাহ্নবী পূজা । উঃ ৫।০৮ অঃ ৬।০১ ।

২৩ মধুসূদন, ২০ বৈশাখ, ৪ মে, বৃহস্পতিবার, গৌর-নবমী রাত্রি ১১।১৫ । শ্রীনিত্যানন্দ-শক্তি শ্রীজাহ্নবাদেবীর ও শ্রীরামশক্তি সীতাদেবীর আবির্ভাব । উঃ ৫।০৭ অঃ ৬।০২ ।

২৪ মধুসূদন, ২১ বৈশাখ, ৫ মে, শুক্রবার, গৌর-দশমী রাত্রি ১০।২৯ । উঃ ৫।০৬ অঃ ৬।০২ ।

২৫ মধুসূদন, ২২ বৈশাখ, ৬ মে, শনিবার, গৌর-একাদশী রাত্রি ১০।১২ । মোহিনী একাদশীর উপবাস । উঃ ৫।০৫ অঃ ৬।০৩ ।

২৬ মধুসূদন, ২৩ বৈশাখ, ৭ মে, রবিবার, গৌর-দ্বাদশী রাত্রি ১০।২৬ । প্রাতঃ ৫।০৫ গতে পূর্ব্বাহ্ন ৯।২৪ মধ্যে একাদশী পারণ । উঃ ৫।০৫ অঃ ৬।০৩ ।

২৮ মধুসূদন, ২৫ বৈশাখ, ৯ মে, মঙ্গলবার, গৌর-চতুর্দ্দশী রাত্রি ১২।২৪ । শ্রীশ্রীনৃসিংহ-চতুর্দ্দশী ব্রত ও উপবাস । উঃ ৫।০৪ অঃ ৬।০৪ ।

২৯ মধুসূদন, ২৬ বৈশাখ, ১০ মে, বুধবার, পূর্ণিমা রাত্রি ২।০০ । প্রাতঃ ৫।০৩ গতে পূর্ব্বাহ্ন ৯।২৩ মধ্যে শ্রীশ্রীনৃসিংহ-চতুর্দ্দশী ব্রতের উপবাস পারণ । শ্রীকৃষ্ণের ফুলদোল ও সলিল-বিহার । বুদ্ধ পূর্ণিমা, পূর্ণিমার ব্রত উপবাস । শ্রীল পরমেশ্বরী দাস ঠাকুরের তিরোভাব । শ্রীল শ্রীনিবাস আচার্য্যের আবির্ভাব । উঃ ৫।০৩ অঃ ৬।০৫ ।

রিবিক্রম মাস—৩০ দিন

১ ত্রিবিক্রম, ২৭ বৈশাখ, ১১ মে, বৃহস্পতিবার, কৃষ্ণ-প্রতিপদ রাত্রি ৩।৫৪ । ত্রিদণ্ডিস্বামী শ্রীমদ্ভক্তিসারঙ্গ গোস্বামী মহারাজের তিরোভাব । উঃ ৫।০৩ অঃ ৬।০৫ ।

জ্যৈষ্ঠ মাস—৩১ দিন
৬ ত্রিবিক্রম, ১ জ্যৈষ্ঠ, ১৬ মে, মঙ্গলবার, কৃষ্ণ-পঞ্চমী দিবা ১১।১২ । শ্রীল রামানন্দ রায়ের তিরোভাব । উঃ ৫।০০ অঃ ৬।০৮ ।

১১ ত্রিবিক্রম, ৬ জ্যৈষ্ঠ, ২১ মে, রবিবার, কৃষ্ণ-দশমী দিবা ১১।২৭ । উঃ ৪।৫৭ অঃ ৬।১১ ।

১২ ত্রিবিক্রম, ৭ জ্যৈষ্ঠ, ২২ মে, সোমবার, কৃষ্ণ-একাদশী দিবা ১০।০৫ । অপরা একাদশী উপবাস । উঃ ৪।৫৭ অঃ ৬।১১ ।

১৩ ত্রিবিক্রম, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ২৩ মে, মঙ্গলবার, কৃষ্ণ-দ্বাদশী দিবা ৮।২১ । প্রাতঃ ৪।৫৮ গতে পূর্ব্বাহ্ন ৮।২১ মধ্যে একাদশী পারণ । শ্রীল বৃন্দাবন দাস ঠাকুর আবির্ভাব । উঃ ৪।৫৭ অঃ ৬।১২ ।

১৪ ত্রিবিক্রম, ৯ জ্যৈষ্ঠ, ২৪ মে, বুধবার, কৃষ্ণ-ত্রয়োদশী দিবা ৬।২১ পরে কৃষ্ণ-চতুর্দ্দশী শেষরাত্রি ৪।০৭ । উঃ ৪।৫৭ অঃ ৬।১২ ।

১৫ ত্রিবিক্রম, ১০ জ্যৈষ্ঠ, ২৫ মে,বৃহস্পতিবার, অমাবস্যা রাত্রি ১।৪৪ । অমাবস্যার উপবাস । উঃ ৪।৫৭ অঃ ৬।১২ ।

১৬ ত্রিবিক্রম, ১১ জ্যৈষ্ঠ, ২৬ মে, শুক্রবার, গৌর-প্রতিপদ রাত্রি ১১।১৬ । শ্রীচৈতন্য-সারস্বত কৃষ্ণানুশীলন সঙ্ঘের শ্রীশ্রীগুরু-গৌরাঙ্গ-রাধা-মদনমোহন জীউর প্রাকট্য মহোৎসব । উঃ ৪।৫৬ অঃ ৬।১৩ ।

১৯ ত্রিবিক্রম, ১৪ জ্যৈষ্ঠ, ২৯ মে, সোমবার, গৌর-চতুর্থী অপরাহ্ন ৪।১৭ । শ্রীপাদ ভক্তিগৌরব গিরি মহারাজ (শ্রীপাদ পরমানন্দ বিদ্যারত্ন প্রভু) তিরোভাব । উঃ ৪।৫৬ অঃ ৬।১৪ ।

 

      

 

বৃক্ষসম ক্ষমাগুণ করবি সাধন । প্রতিহিংসা ত্যজি আন্যে করবি পালন ॥ জীবন-নির্ব্বাহে আনে উদ্বেগ না দিবে । পর-উপকারে নিজ-সুখ পাসরিবে ॥